সুন্দর মন সবকিছু পরিবর্তন করতে পারে-

23rd November, 2023
60




সময়ের প্রেক্ষাপটেঃ

আবছা আলো কিছু ক্ষেত্রে যেকোনো কিছুর সৌন্দর্য বাড়ায়। যেমন- শীতের শেষ থেকে বসন্তের মাঝের দুপুরের সময়টাতে সূর্যের হালকা চকচকে আলো আর প্রকৃতির মৃদু বাতাসে যেকোনো কিছুর নতুনত্বতা তৈরি হয়। 

রিলেটেড পোস্ট


পরাক্রমশালী শক্তির মনোভাবে তৈরিকৃত জীবন-
পড়া হয়েছে: ১১০৪ বার

শান্তি মানুষকে শক্তিশালী করে জীবনভোগ শেখায়-
পড়া হয়েছে: ৬৬৩ বার

স্বাভাবিক মাত্রায় যেকোনো কিছুর তারতম্য বজায় রাখা সম্ভব-
পড়া হয়েছে: ৪৪২ বার

বাহ্যিক শিষ্টতার মাঝে মানুষ নিজেকে নির্দিষ্ট করে থাকে-
পড়া হয়েছে: ৪৬১ বার

অনুভবের আর্তনাদের অন্তিম পর্যায়-
পড়া হয়েছে: ২৯২ বার

জীবনের সান্নিধ্যে সবকিছুর নির্ধারিত মাত্রা বজায় রাখা উচিত-
পড়া হয়েছে: ৮০৫ বার

প্রত্যেকের জীবনে সত্যতার তাৎপর্য কতটুকু-
পড়া হয়েছে: ২৬৬ বার

পরাক্রমশালী মনোভাবে তৈরিকৃত জীবন-
পড়া হয়েছে: ৫৫৬ বার

মানবিক মূল্যবোধ মানুষের ভেতরের লক্ষণ নির্ধারণ করে থাকে-
পড়া হয়েছে: ৪০৮ বার

বেলা শেষে-
পড়া হয়েছে: ২৩৮ বার


আরো নিবন্ধন পড়ুন



বিবেকের স্বপ্নীল পর্যটন- Monday, 23rd October, 2023

সর্বোত্তম অনুভবের মুহূর্তঃ

নিজের প্রতিচ্ছবি প্রকৃতির মাঝে ফুটিয়ে তোলার ভালোলাগা তোমার ভিতরের প্রকৃত মানুষের পরিভাষা তৈরি করবে। প্রকৃতি তোমার ছোট হৃদয়ের সীমাহিন আকৃতি ধারণ করাবে, যদি নিজেকে ভালো রাখতে জানো। নিস্বার্থ প্রকৃতির বন্ধু হতে পারলে জীবনের মানে বুঝতে পারবা। যেকোনো কিছুর সঠিক পরিচর্যা অল্প সময়ে তোমাকে নতুন কিছুর অভিজ্ঞতা করাবে।

নিজের প্রতি সীমাহিন ভালোলাগা প্রত্যেককে সমানভাবে রেখে তাদের দিক থেকে নিজেকে বিবেচনা করা শেখাবে। কোনো পরিস্থিতিতে সঠিক বিবেচনার জন্য নিজের ভিতরে মনুষ্যত্ববোধ থাকা দরকার। বিষয়টা শিক্ষিত বা অশিক্ষিতর না। একটা মানুষের মনুষ্যত্ববোধ স্বচ্ছ কাঁচের মতো, যেখানে কেউ না বুঝে একটু আঘাত করলে তার অস্তিত্ব তোমার জীবনে গুড়ো কাঁচের মতো হয়ে যাবে। সেই কাঁচ হয়তো কখনো জোড়া লাগানো যাবে না। কিন্তু তার গলিত রূপ তোমাকে তার নতুন আকৃতির রূপ ধারণ করাতে সাহায্য করাবে।

মনুষ্যত্ববোধ সম্পন্ন মানুষ দেখতে সরল প্রকৃতির হলেও তারা কারোর অল্প পরিচিতিতেই তার বিশ্লেষিত রূপ বুঝতে পারে। তুমি যদি নিঃস্বার্থ মনুষ্যত্ববোধ সম্পন্ন মানুষ হও তাহলে তোমার সাধারণ প্রকৃতি একেক জনের কাছে একেক রকম। কারণ তুমি প্রত্যেকের কাছে তাদের মতো। তোমাকে সেই ব্যক্তিই বুঝবে, নিস্বার্থভাবে যে সবার কাছে নিজেকে প্রকাশ করতে জানে। কারণ তিনি জানেন, ক্ষণিকের পৃথিবীতে কর্ম ছাড়া সবকিছুই মরীচিকার মতো। মৃত্যুর পর প্রত্যেকে তার কর্ম ছাড়া কিছুই সাথে নিতে পারবে না।

প্রত্যেকের মধ্যেই আবেগ আর বিবেক থাকে। কিন্তু বেশিরভাগ মানুষই আবেগকে শুরুতে খুঁজে পায়। আবেগ থেকে পাওয়া অভিজ্ঞতাই একটা সময় তার বিবেককে জাগায়। শুরু থেকে খুব অল্প মানুষের জীবনে বিবেক কাজ করে। যারা সময়ের আগেই জীবনের পরিপূর্ণতা অর্জন করে। সবকিছুই বলা সহজ করা কঠিন বিষয়টা এইরকম না। যেকোনো কিছুর প্রতি অনুভবকে সামলাতে জানলে সবকিছুই সাধারণ। সর্বোত্তম হওয়া সম্ভব না। কারণ প্রত্যেকেই কিছু কমতি নিয়েই পৃথিবীতে ভূমিষ্ঠ হয়। কিন্তু নিজের সঠিক পরিচালনা তাকে পূর্ণতা দেয়।

কোনো কিছুর জন্য নিজেকে দোষ নয় সময় দাও। জীবনকে বুঝতে মোহ ত্যাগ করো মনুষ্যত্ববোধ নয়। 

শান্তি মানুষকে শক্তিশালী করে জীবনভোগ শেখায়- Friday, 08th March, 2024

অনুপ্রাণিত দৃষ্টিভঙ্গিঃ

অনুপ্রাণিত বিষয়ের হালকা মনোভাবে কেউ জীবনের পরিভাষা বোঝে। হয়তো তাদের বোঝার মানুষ খুব কম পাওয়া যায়। কারণ যেসব ব্যক্তির মধ্যে সহস্র অনুভূতি জাল বুনতে থাকে। তারা নিজেকে বোঝে। আর প্রত্যেকটা পরিস্থিতির মাঝ থেকে পরিমাপকৃত শিক্ষা গ্রহণ করে। যেটা তাদের প্রত্যেকটা বিষয়ের সাথে খাপ খাওয়াতে সহায়তা করে। যখন অসংখ্য পরিস্থিতির মাঝে সেইসব ব্যক্তি সহজ হয়ে থাকে প্রত্যেকের কাছে। হয়তো তারা প্রকৃতির আদলে নিজেকে আগলে রাখে। যার কারণে সবার মাঝে তারা সীমিত হলেও তাদের প্রভাব বিস্তৃত। তাই সবকিছুর মাঝে নিজেকে প্রকৃতির আদলে আগলাতে জানলে সবকিছুর সহজ পরিভাষা প্রদর্শিত হবে। যা কাউকে মানুষ হিসেবে তার জীবন ব্যক্ত করতে সহায়তা করবে।

কেউ সবসময় ভুল সিদ্ধান্ত নিতে পারে না। আবার কেউ সবসময় সঠিক সিদ্ধান্ত পারে না। এই দ্বিধাগ্রস্ততার কারনে মানুষের মধ্যে অগোছালো চিন্তার আবির্ভাব ঘটে। যার জন্য কোনো কাজের শুরুতে সামান্য ভুলে, নির্ধারিত সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণরূপে পরিবর্তন করতে হয়। কারণ উপযোগ মানুষের জীবনে সমীক্ষার মতো। যা কাউকে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে সংশোধনের জায়গায় পরিবর্তন শ্রেয় অনুভব করায়। মানুষের বিবেচনার পরিপ্রেক্ষিতে তার চারপাশে একটা মিশ্রিত পরিবেশ সৃষ্টি হয়। আর এই পরিবেশের একটা ইতিবাচক দিক হলো - পরিস্থিতি যতটা কঠিন হতে থাকে। মানুষ তার জীবনের প্রতি ততটা আকষ্মিক হতে থাকে। এই মূহুর্তে সেইসব ব্যক্তিকে যেকোনো কারণে থামানো মুশকিল হয়ে পড়ে। কারণ একবার যখন মানুষ তার জীবনের পথপ্রদর্শক হয়ে যায়। তখন সেইসব ব্যক্তির ভেতরে হালকাভাবে কঠিনত্বতার প্রাদুর্ভাব পরিলক্ষিত হতে থাকে। যখন এই ধরনের ব্যক্তিগুলো নিজের সমস্ত সরলতার মাঝেও জীবনের প্রতি দৃঢ়তা বজায় রাখতে সক্ষম হয়।

এমন অনেক ব্যক্তি আছে যারা, কিছু মূহুর্তে তোমাকে অনেকটা বিরক্ত করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করার চেষ্টা করবে। কিন্তু সেই মূহুর্তে যদি তুমি নিজের ভেতরের শান্তি বজায় রেখে ভালো কিছু অনুভব করতে সক্ষম হও। তাহলে তোমার অনাকাঙ্ক্ষিত আচরণ অপর ব্যক্তিকে বিব্রতার সাথে শান্ত করে যাবে। কেউ হয়তো সবসময় শান্তভাবে নরম অনুভবে থাকলে মানুষ তাকে দুর্বল মনে করে। কিন্তু কিছু শান্ত ব্যক্তি এতটাই মজবুত প্রকৃতির হয় যে, তার সামান্য কঠোর আচরণ কাউকে পুরোপুরি ভীত অনুভূতির সাথে চুপ করিয়ে দিতে পারে। পরবর্তীতে তার আবছা প্রতিচ্ছবিও অপর ব্যক্তিকে ঠান্ডা অনুভূতির সাথে কাঁপিয়ে তুলতে পারে। তাই যেই ব্যক্তি শান্ত প্রকৃতির মানুষগুলোকে দুর্বল মনে করে, তার দুর্বলতায় আঘাত করার চেষ্টা করবে। পুরো বিশ্বাসের সাথে বলা যায় যে, তারা প্রকৃতির ঝড়ের কথা ভুলে গেলেও শান্ত ব্যক্তির কঠিন আচরণ তাকে আজীবন ভীত অনুভূতির মাধ্যমে বিব্রতার সাথে দুর্বল করে দিতে পারে।

হামাসের হামলায় ৯ আমেরিকান নিহত Thursday, 12th October, 2023

গত শনিবার ফিলিস্তিনি সশ্বস্ত্র গোষ্ঠি হামাসের রকেট হামলায় ইসরায়েলে নিহত ৮০০ ছাড়িয়েছে। নিহতের মধ্যে অন্তত ৯ জন আমেরিকার নাগরিক আছেন বলে জানিয়েছে  মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। নিহতের এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছে দেশটি। 

সোমবার আমেরিকার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ম্যাথিউ মিলার বলেন, ‘ওই অঞ্চলে হামাসের হামলায় আমাদের দেশের ৯ জন মারা গেছেন। এই তথ্য আমরা পেয়েছি। কোনো আমেরিকানকে জিম্মি করা হয়েছে কিনা, সেটিও দেখা হচ্ছে।’

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন বলছে, হামাসের হামলায় ইসরায়েলে নিহতের সংখ্যা ৮০০ ছাড়িয়েছে। পাল্টা হামলায় নিহত হয়েছে ৫১০ ফিলিস্তিনি। দুই দেশের মোট ৫ হাজার মানুষ আহত হয়েছে। আল জাজিরা বলছে, গাজা থেকে বাস্তুচ্যুত হয়েছেন ১ লাখ ২০ হাজার বাসিন্দা। এখনো সংঘাত চলছে।

হামাসের হামলায় ৯ জন আমেরিকান ছাড়াও নেপালের ১০ জন ও থাইল্যান্ডের ১২ জন মারা গেছেন।  

আল জাজিরা বলছে, হামাসের হামলার জবাবে এবার রিফিউজি ক্যাম্পেও হামলা শুরু করেছে ইসরায়েলের সামরিক বাহিনী। বিমান হামলা থেকে রক্ষা পেতে এদিক–সেদিক ছুটছে সবাই। তবে তাদের যাওয়ার কোনো জায়গা নেই।

ফিলিস্তিনি গোষ্ঠী হামাস ও ইসরায়েলের মধ্যে চলমান সংঘাতে তৃতীয় পক্ষে যে কোনো সময় ঢুকে পড়তে পারে, এমন 'ঝুঁকি’ রয়েছে বলে জানিয়েছে রাশিয়া।

নতুন বছর শুরু হোক ঈমান ও আমলের সাথে Saturday, 06th January, 2024

 

 

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু!

 

একটি সতর্কতা: আমাদের জীবনটি হয়তো একটি পরীক্ষা, কিন্তু আল্লাহর সাথে আমাদের সম্পর্ক একটি অসীম সৌভাগ্য। তাই, সবসময় আল্লাহর দিকে মুখ তোলুন এবং তার নিকটে সান্ত্বনা ও সুরক্ষা অনুভব করুন।

 

কোনও পরিস্থিতিতেই, "ইন আল্লাহি মা আশোব" - আল্লাহ তার করুণার বাণীতে আমরা ভরসা রাখি। কখনওই আপনি একা নয়ে যাচ্ছেন না, আল্লাহ সব সময় আপনার সাথে আছেন।

 

ইসলাম আমাদেরকে দিচ্ছে একটি দিকে চলতে, আল্লাহর ইচ্ছামতো জীবন করতে। হাদীসে আছে, "যত সময় তোমার দিতে হবে তুমি এবং যত সময় তোমার বসতি থাকতে হবে, তাতে আল্লাহ তোমার জন্য সবচেয়ে উত্তম কাজটি চায়ে।"

 

তাই, আমরা সবসময় আল্লাহর ইচ্ছামতো জীবন চাইতে পারি। হাসতে এবং দু: খিত হতে, কিন্তু শোক এবং সোঁচ বজায় থাকতে চাইব না।

 

আমরা একটি বিশেষ সময়ে আছি, যেটি আমাদের পূর্ণাঙ্গ প্রতিকূলিত হতে সহায় করতে পারে। প্রতিটি দোয়া শোনানো এবং সততা, করুণা, এবং সহানুভূতির প্রতি আমাদের অবলম্বন থাকতে হবে।

 

এই সময়ে, আমরা আপনাদের সবাইকে শান্তি এবং সুখের সাথে একটি আনন্দময় জীবনের প্রকাশ করতে অনুরোধ করছি। আল্লাহ সবাইকে আপনার বান্ধব সাথে আত্মীয়তা এবং প্রেমে আবৃদ্ধি করুক।

 

আপনাদের সবাইকে আল্লাহর কয়েকটি অমূল্য সুবিধা এবং অমূল্য সময় প্রদান করুক। ইসলামে আপনার জীবন পরিবর্তন হতে পারে এবং তাদের প্রবল দোয়া এবং ইমানের মাধ্যমে আপনি আপনার লক্ষ্যে অগ্রগতি করতে

 

অনুরোধ করছি। আল্লাহ সবাইকে আপনার বান্ধব সাথে আত্মীয়তা এবং প্রেমে আবৃদ্ধি করুক।

 

আপনাদের সবাইকে আল্লাহর কয়েকটি অমূল্য সুবিধা এবং অমূল্য সময় প্রদান করুক। ইসলামে আপনার জীবন পরিবর্তন হতে পারে এবং তাদের প্রবল দোয়া এবং ইমানের মাধ্যমে আপনি আপনার লক্ষ্যে অগ্রগতি করতে সাহায্য করতে পারে।

 

আল্লাহর কাছে আমাদের সবচেয়ে বড় হরফ হলো "তাওবা" - পশ্চাত্তাপ এবং মানবিক উন্নতির দিকে এগিয়ে যাওয়া। যে কোনও ভুল করলে, তাওবা করুন এবং আল্লাহর কাছে মুক্তি এবং ক্ষমা প্রাপ্ত করুন।

 

এই নতুন বছরে, আল্লাহ আপনাদের জীবনকে সমৃদ্ধি, শান্তি, এবং সুস্থতা দান করুক। আমাদের প্রতিটি পদক্ষেপই আল্লাহর ইচ্ছামতো হোক এবং তিনি আপনাদেরকে সব ভালোবাসুক।

 

শুভ নববর্ষ! ????✨????