AI is coming for you with a new dimension

14th December, 2023
43




ভবিষ্যতে Artificial Intelligence (AI) ক্ষেত্রে অনেক পরিবর্তন আনা যাচ্ছে, এবং এটি বিভিন্ন শাখার মাধ্যমে আমাদের দৈর্ঘ্যবাদী পরিবর্তনের সৃষ্টি করতে সক্ষম। কিছু মৌলিক পরিবর্তনের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে:

1. **ভাষা সাবলীলতা এবং সেমান্টিক অ্যানালাইসিস:** AI সাবলীলতা এবং সেমান্টিক অ্যানালাইসিসের ক্ষেত্রে অনেক উন্নতি হতে চলেছে, যাতে একটি সিস্টেম ভাষা বুঝতে এবং তার সাথে সাংকর্ষণ করতে পারে। এটি ভাষার বুঝতে, পূর্বাভাস তৈরি করতে এবং সম্প্রচার করতে আরও কার্যকর হতে পারে।

2. **কম্পিউটার ভিশন:** AI এবং মেশিন লার্নিং ব্যবহার করে কম্পিউটার ভিশনে বৃদ্ধি হচ্ছে, যাতে কম্পিউটার ছবি বা ভিডিও সম্পর্কে স্বয়ংক্রিয়ভাবে বুঝতে পারে এবং তার সাথে সংকর্ষণ করতে পারে।

3. **স্বাধীনভাবে কাজ করতে সক্ষম সিস্টেম:** স্বাধীনভাবে কাজ করতে সক্ষম AI সিস্টেমের উন্নতি হতে চলেছে, যাতে এই সিস্টেমগুলি নতুন পরিস্থিতিতে নতুন পর্যায়ে সমস্যা সমাধান করতে সক্ষম হতে পারে।

4. **রোবোটিক্স এবং অটোনমাস সিস্টেম:** রোবোটিক্স এবং অটোনমাস সিস্টেমগুলি আরও বৃদ্ধি হবে, যাতে তারা মানুষের সাথে কার্যকরভাবে সহযোগিতা করতে পারে।

5. **কোয়ান্টাম কম্পিউটিং:** কোয়ান্টাম কম্পিউটিং প্রযুক্তি আসছে, যা অত্যন্ত শক্তিশালী হতে সক্ষম এবং কিছু ক্রিয়াকলাপগুলির জন্য দ্রুততা এবং সহজে সম্ভাবনা প্রদান করতে সক্ষম।

এগুলি মতো পরিবর্তনের অনুমান করা হচ্ছে, কিন্তু ভবিষ্যতে আরও অনেক প্রযুক্তি এবং প্রকল্পগুলি বাজারে আসতে পারে যা আমরা এখনো আগামীতে জানি নি।


আরো নিবন্ধন পড়ুন



#ছোট পদক্ষেপ Saturday, 06th January, 2024

ছোট পদক্ষেপ, বৃদ্ধি আনে বৃদ্ধি। আমরা সবাই অপরিসীম, শক্তিশালী পরিবর্তন চাইতে থাকি, কিন্তু আমাদের জীবনের মৌলিক পরিবর্তন আসতে হলে সেটি ছোট পদক্ষেপের মাধ্যমেই হতে পারে।

 

আমরা অনেকগুলি ছোট পদক্ষেপের মাধ্যমে পরিবর্তন ঘটাতে পারি, যেগুলি সম্ভবত আমরা সাধারণভাবে উপেক্ষা করি। উদাহরণস্বরূপ, দিনটি শুরু হতেই আপনি কেটে এসেছেন একটি গুলি প্লাস্টিক বোতলের বৃষ্টির জোড়ো সাথে, এটি আপনার মৌলিক পরিবর্তনের শুরু হতে পারে! আমরা সকলে এই প্রকারের ছোট পদক্ষেপগুলি নেওয়ার মাধ্যমে প্রকৃতির দিকে আমাদের অবদান বাড়িয়ে দিতে পারি।

 

এই ছোট পদক্ষেপগুলি সামাজিক পরিবর্তনেও কৌশল আসতে পারে, যেটি সমাজের মাধ্যমে একজন ব্যক্তির ভিত্তিতে শুরু হতে পারে। এই পদক্ষেপগুলি একটি সুস্থ, সহজলভ্য ও বিশ্ববাসী সমাজ সৃষ্টি করতে সাহায্য করতে পারে, যাতে আমরা সমস্ত প্রকারের পরিবর্তন ঘটাতে সক্ষম হতে পারি।

 

আসুন সবাই মিলে ছোট পদক্ষেপ নেয়ার প্রতিশ্রুতি নেই এবং একসঙ্গে এই পৃথিবীকে একটি উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ দেয়ার লক্ষ্যে এগিয়ে যাই।

শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত চলতে থাকা জীবনের গুরুত্বপূর্ণ অংশ- Tuesday, 31st October, 2023

ভবিষ্যতের আবরণঃ

পর্যায়ক্রমে চলতে থাকা জীবনের সংক্ষিপ্ততার অনুভব তোমার চিন্তাধারা বদলে দেবে। সময়ের সাথে তোমার জীবনে হওয়া পরিবর্তনগুলো বার বার তোমাকে পরিস্থিতি পরিবর্তন করতে বাধ্য করবে। একটা সময়ের পরে সবার সর্বশেষ চাহিদার মধ্যে পড়ে শান্তিপূর্ণ জীবন। চাইলেও এই চিন্তাধারার কোনো পরিবর্তন করা যায় না। জীবনের পথ চলতে চলতে একসময় সবাইকে থামতে হয় নিজের জন্য। তখন শুরু থেকে শেষের মূহুর্তগুলো ভিতর থেকে নিজেকে নারা দিতে থাকবে জীবনের শেষ অবধি।

অনুভব, সংকোচ, প্রয়োজন ইত্যাদি চাইলেও তুমি কারোর সাথে প্রকাশ করতে পারবা না। কারণ এইগুলো নিজের একান্ত। যা প্রকাশ করলে এক না এক সময় হিতের বিপরীত হয়। যা তোমাকে কোনোকিছু বোঝার সুযোগটুকু দেবে না। সবকিছু এক মূহুর্তের জন্য নিস্তব্ধ করে দেবে। এই বিষয়টা কোনো সময় চিন্তা করলেও তোমার মাথার উপর দিয়ে যাবে। কিন্তু বিষয়টা তোমাকে ভিতর থেকে শান্ত করে রাখবে শেষ অবধি। জীবনের খারাপ সময়ের অভিজ্ঞতা সবারই একবার হয়। কারোর প্রকাশ্যে, কারোর অপ্রকাশ্যে। অপ্রকাশ্যেরটার ভিতর থেকে চাপ দিলেও সবসময় যেকোনো কিছুর অতিরিক্ততা ভেতর থেকে নিয়ন্ত্রণ করে। যা তার কাছে সবকিছুই সাধারন করে রাখে শেষ অবধি।

অনুভবের কোনো শেষ নেই। প্রত্যেকটা জিনিসের ভিন্নতায়, তোমার অনুভব পরিবর্তিত হতে থাকবে। তুমি যত বেশি পরিস্থিতির সম্মুখীন হবা। সময়ের সাথে তত দ্রুত পরিবর্তন আনতে পারবা নিজের মধ্যে। নিজের পরিবর্তন সবসময় তোমাকে এক রকম রাখবে সব জায়গায়। কিন্তু কোনো কিছুর জন্য এগোনোর আগে ভেবে নেওয়া উচিত। যাতে পরবর্তিতে তোমাকে অপ্রিতিকর পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে না হয়। কারণ যেকোনো কিছুই আমাদেরকে সবসময় প্রভাবিত করতে থাকে। এইজন্য যেকোনো কিছু করার আগে ভালোভাবে ভেবে করা উচিত। প্রত্যেকের মধ্যেই স্পষ্টটা থাকা দরকার। কারন একজন স্পষ্টবাদী ব্যক্তির কোন কিছুর জন্য জবাবদিহিতা করতে হয় না। তার স্পষ্টতা সবসময় তার সত্যতা প্রকাশ করে সবার কাছে।

ভিন্নতা আর নতুনত্বতার মধ্যে মিল থাকলেও একটা আরেকটার থেকে সম্পূর্ণ আলদা। আবার কিছু ক্ষেত্রে একটা আরেকটার সাথে জড়িত। যেমন- কোনো কিছুর নতুনত্বের ভিন্নতা তোমাকে নতুনভাবে ভাবতে শেখাবে। আবার কোনো কিছুর উটকো নতুনত্ব তোমাকে বিরক্ত করবে। কিন্তু কিছু পরিবর্তিত জিনিসের নতুনত্বতা, তোমাকে হালকা আকৃষ্ট করাবে বিষয়টার প্রতি। পার্থক্য হলো- ভিন্নতা জড়িত আর নতুনত্ব উচ্চারিত। পৃথিবীর শুরু থেকে এই পর্যন্ত যেকোনো কিছুর নতুনত্বের ভিন্নতাই সবকিছু যেভাবে পরিবর্তন করে আসছে যে, বিষয়টা ভাবলেই গল্পের মতো মনে হয় অনেকের কাছে। কিন্তু এটাই বাস্তবতা যে, পরিবর্তনের সাথেই সবকিছুর পরিসমাপ্তি ঘটবে।

পরিবর্তনের পৃথিবীতে মেনে নিলে সবকিছু সহজ। মোহ আর মায়ার পরিবর্তন বুঝলে জীবনের জন্য সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়া সহজ।

জীবনের সান্নিধ্যে সবকিছুর নির্ধারিত মাত্রা বজায় রাখা উচিত- Saturday, 23rd December, 2023

অন্তহীন পর্যালোচনাঃ

কোনো মানুষ নিজেকে সবচেয়ে সৌভাগ্যবান তখন মনে করে, যখন সে তার বিশেষ কিছুর মধ্যে নিজের প্রতিচ্ছবি খুঁজে পায়। আবদার সবার মধ্যেই কম বেশি থাকে। তবে ইচ্ছা প্রকাশের শক্তি কিছু ব্যক্তির মধ্যেই থাকে। যার কারনে বর্তমান সময়ের মানুষগুলো, উপর থেকে যেমনই হোক না কেন। ভিতর থেকে অনেকেই সবকিছুর মধ্যেও নিজের খুশিতে বাঁচতে শিখে গেছে। একটা সময় যেকোনো কিছুই কোনো ব্যাপার না। যখন কেউ নিজে তার ব্যক্তিত্ব তৈরি করবে প্রত্যেকটা পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে। কারণ মানুষ যেমন অবুঝ নয়। তেমনি সর্বজ্ঞ নয়। যেজন্য প্রত্যেকটা মানুষের‌‌‌ মধ্যে যেকোনো কিছুর কার্যক্ষমতা থাকলেও পরিচালনক্ষমতা সীমিত ব্যক্তির মধ্যে বিস্তারিতভাবে থাকে।

মানুষের প্রত্যেকটা মূহুর্ত তার জীবনকে উপস্থাপন করে। কার মানসিকতা কেমন? কার বিবেচনা শক্তি কেমন? সবকিছুই যে কাউকে প্রভাবিত করতে পারে। কিন্তু কারণ ছাড়া কোনো কিছু অর্থহীন! কম বেশি বিবেচনা সাধারণ। কিন্তু কোনো কিছুর বিচার ছাড়া বিশ্লেষণ মূর্খতা। কোনো কিছুর জন্য যে শুধু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষা জরুরি, বিষয়টা এমন নয়। কিছু ক্ষেত্রে মানবিক মূল্যবোধের দরকার হয়। যা কাউকে বিবেচনার মাধ্যমে যে কোনো পরিস্থিতিতে স্বাভাবিক সিদ্ধান্তে উপনীত হতে সহায়তা করে। তখন অন্যের দোষের জায়গায় নিজের ভুলগুলো চোখে পড়ে। যখন জীবনের বেশিরভাগ সমাধান অটোমেটিকভাবে হয়।

মানুষের জীবনের প্রত্যেকটা মূহুর্ত মূল্যবান। যা ক্ষণিকের হলেও একবার চলে গেলে আর ফিরে পাওয়া সম্ভব নয়। তাই জীবনের প্রত্যেকটা মূহুর্তকে উপভোগ করে যাওয়া উচিত। যাতে কখনো অন্যত্র দায়ে নিজের মধ্যে অনুশোচনা তৈরি না হয়। সাবলীল জীবন-যাপনে কোনো কিছুর সংক্ষিপ্ততাও বিশ্লেষিত রূপ প্রকাশ করে যায়। যেখানে সামান্য কিছু অমূল্যভাবে নিজের জায়গা নির্ধারণ করে যায়। যা কোনো পরিস্থিতির মধ্যে স্মৃতিচারণ হিসেবেও স্বাভাবিক মাত্রা বজায় রাখে। তাই অনুভব করা উচিত নিজের খুশিতে। আর বাঁচা উচিত সবার শান্তির শেষ মাধ্যম হিসেবে। যা কেউ প্রকাশ না করলেও কখনো ভুলে যায় না।